সোনারগাঁয়ে নাম মাত্র মূল্যে জমি বিক্রি না করায় জোর করে দখল

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের গোলনগর এলাকার সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু চক্রের বিরুদ্ধে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে মো: দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যক্তি। মায়ের ক্রয়কৃত জমি পিতার কাছ থেকে কিনে নিয়েছে দাবি করে জোরপূর্বক দখল করে নির্মাণ কাজে বাধা দেয়ায় প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করায় মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) এ অভিযোগ দায়ের করা হয়।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, দেলোয়ার হোসেনের মা সাহেরা খাতন বিগত ১৯৭৪ সালে পঞ্চমীঘাট মৌজায়, জেএল নং সিএস ১২৬ খতিয়ান নং সাবেক ১০২ আরএস ৪৭৩, এসএ ১২ নং আরএস ২৯৮ নম্বর দাগে সাব কবলা দলিল মূলে ১১ শতাংশ বাড়ি ভিটা জমি ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছিল। সাহেরা খাতুন মারা যাওয়ার পর তার স্বামী কাজী মজিবুর রহমানের কাছ থেকে একই এলাকার মৃত জসিম উদ্দিন মেম্বারের ছেলে মাসুদ (৩০), মাফুজ (২৬), মৃত আলেকের ছেলে নাজিম উদ্দিন (৪৫) ও সাসির উদ্দিন (৫০) ওই জমি কিনে নিয়েছে দাবি করে জোরপূর্বক দখল করে নেয়। জমিতে গত ১১ জুলাই নির্মাণ কাজ শুরু করলে সাহেরা খাতুনের ওয়ারিশদার ৪ ছেলে ও ৬ মেয়ে বাধা দিলে দখলকারী মাসুদগং তাদের প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। জীবনের ভয় ও জমি উদ্ধারে জমির মালিকরা সোনারগাঁ থানায় গিয়ে মামলা করতে চাইলে পুলিশ তাদের অভিযোগ গ্রহণ না করে জিডি করার পরামর্শ দেয়। ফলে একটি জিডি করা হয়। যার নং-৩২০ তারিখ ১১-০৭-২০২০ ইং। জিডি করা হলেও পুলিশ রহস্য জনক কারণে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেননি। জমির মালিকরা থানা পুলিশের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও আইনী সহায়তা পায়নি। অপরদিকে দখলকারী মাসুদগং দেলোয়ার হোসেনগংদের বাড়ির রাস্তা বন্ধ করে দেয়। ফলে নিরুপায় হয়ে মাসুদগংদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করতে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানান দেলোয়ার।

দেলোয়ার আরো জানায়, স্ত্রীর ক্রয়কৃত জমি স্বামী কি করে বিক্রি করে তা বোদগম্ম নয়। তবে স্ত্রী আগে মারা যাওয়ায় ওয়ারিশ সূত্রে স্বামী ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ জমির মালিক হয়। যা তিনি মারা যাওয়ার আগে তার দ্বিতীয় স্ত্রী অর্থাৎ আমার সৎ মার নামে হেবা নামা দলিল করে দিয়ে গেছেন। বর্তমানে আমার সৎ মা ওই জমিতে ভোগ দখলে রয়েছেন। বাকী অংশ গত কয়েক বছর ধরে মাসুদগং আমি ও আমর অন্যান্য ভাই বোনদের কাছ থেকে কিনে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে আসছে। বর্তমান বাজারে প্রায় ৩০ লাখ টাকার জমি মাত্র ২ লাখ টাকায় বিক্রি করার জন্য চাপ প্রয়োগ ও ভয় ভিত্তি প্রদান করে আসছে। কিন্তু আমারা ভাই বোনরা জমি বিক্রি করতে জারি না হওয়ায় জোর করেই সন্ত্রাসী ভূমিদস্যু মাসুদগংরা জমি দখল করে নির্মাণ কাজ শুরু করেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত মাসুদের সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি জমি দখলের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, দেলোয়ারের পিতা মজিবুর রহমানের কাছ থেকে ক্রয় সূত্রে মালিক হয়ে ৩০ বছর ধরে ভোগ দখল করে আসছি। যদি তার মা কাগজ পত্রে জমি পাওনা হয় তাহলে দিয়ে দিবে।

পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম এর সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি বলেন, অভিযোগটি দেখে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করার নির্দেশ দিব।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button