নাারায়ণগঞ্জকে হটস্পট হিসেবে দেখতে চান না মেয়র আইভী

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জকে আর হটস্পট হিসেবে দেখতে চান না জানিয়ে মেয়র আইভী বলেন, করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতি আমরা আর দেখতে চাই না। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে করোনা মোকাবেলা করতে চাই। জনপ্রতিনিধি হলেও আমরা জনগণের সেবক। নারায়ণগঞ্জবাসীর স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সিটি কর্পোরেশন অতীতের মতো পাশে থেকে জনগণের সেবায় নিয়োজিত থাকবে। নারায়ণগঞ্জে দ্বিতীয় ধাপে করোনা পরিস্থিতি অবনতির দিকে যাচ্ছে। সর্বস্তরের মানুষের কাছে আহ্বান অপনারা মাস্ক ব্যবহারসহ সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন।


“মাস্ক পড়ার অভ্যেস, করোনামুক্ত বাংলাদেশ”- শ্লোগান নিয়ে রবিবার বিকেলে নগরীর চাষাঢ়ায় জেলা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে করোনা মোকাবেলায় জনসচেনতা সৃষ্টির জন্য সর্বস্তরের নাগরিকদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শামীম বেপারী এবং জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম এবং নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আবদুস সালাম।

এ সময় মেয়র আইভী আরো বলেন, করোনা মোকাবেলায় এ সরকার সফল। পৃথিবীর অন্য দেশগুলোর তুলনায় বাংলাদেশ মহামারী করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে পেরেছে। এ দেশের পুলিশ করোনায় সম্মুখযোদ্ধা হিসেবে ছিলো, আছে। বর্তমানে করোনার যেসব উপসর্গ দেখা দিচ্ছে তা অত্যন্ত ভয়াবহ। বাহ্যিকভাবে যার কোন ধরণের লক্ষণ পরিলক্ষিত হয় না। করোনার এই অবস্থা মানবদেহের ফুসফুসকে নিষ্ক্রিয় করে মানুষকে মৃত্যুর দিকে ধাবিত করে। তাই মরণব্যাধি করোনা থেকে রক্ষা পেতে হলে সতর্কতা অবলম্বন ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ছাড়া আর কোন পথ নেই বলে তিনি মনে করেন।

বক্তব্য প্রদানের পর মেয়র আইভী ও পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমসহ জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা রিকশাচালক, দিনমজুর, গার্মেন্টস কর্মীসহ বিভিন্ন স্তরের শ্রমজীবি মানুষ ও পথচারীদের মধ্যে মাস্ক এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ করেন। সবাইকে সুস্থ থাকার জন্য সর্ব অবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহবান জানান।


এদিকে গত চব্বিশ ঘন্টায় নারায়ণগঞ্জে ৪৩ জন ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। জেলায় এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ৭শ’ ৯৪জন, সুস্থ হয়েছেন ৮ হাজার ৫৪শ’ ৭৫জন এবং মৃত্যু হয়েছে ১শ’ ৫৬ জনের।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button