ইতালি গিয়ে যে তিক্ত অভিজ্ঞতা হলো রোনাল্ডোর

করোনাকালের মাঝেই খেলায় ফিরে কপাল পুড়ল ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর। বুধবার তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো তাকে।

টাইব্রেকারে ৪-২ গোলে জিতে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী জুভেন্টাসকে হারাল নাপোলি। এদিন টাইব্রেকারে নিজের শটটিও নিতে পারেননি রোনাল্ডো।

ফুটবলবোদ্ধারা বলছেন, জুভেন্টাসে নাম লেখানোর পর থেকেই শিরোপার সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটেছে সিআরসেভেনের।

এবারই নয়, গত বছরের শেষে ইতালিয়ান সুপারকোপার ফাইনালে লাজিওর কাছে হেরেছিল জুভেন্টাস।

দেড় যুগের ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত চারটি ভিন্ন ভিন্ন ক্লাবে খেলেছেন রোনাল্ডো। কোনো ক্লাবের হয়েই টানা দুই ফাইনালে পরাজিত হননি তিনি। এবার ইতালিতে গিয়ে অর্থাৎ জুভেন্টাসে নাম লিখিয়ে সেই অভিজ্ঞতা হলো তার।

অথচ নিজ দেশের ক্লাব স্পোর্টিং লিসবন ছেড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে নাম লেখানোর পর থেকেই একের পর এক সাফল্য ধরা দিয়েছে রোনাল্ডোর ক্যারিয়ারে।

স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেয়ার পর শিরোপা জিতেছেন বহুবার। যে কারণে পর্তুগিজ এই তারকার এখনও অভাববোধ করে ক্লাবটি।

কিন্তু সেই রোনাল্ডো রিয়াল ছেড়ে জুভেন্টাসে নাম লিখিয়েই কেমন খেই হারিয়ে ফেললেন। শিরোপার সঙ্গে একটি বিচ্ছেদ ঘটল তার।

ইতালির ঘরোয়া টুর্নামেন্টের শিরোপাও হাতছাড়া হচ্ছে রোনাল্ডো তথা জুভেন্টাসের।

এবার কোপা ইতালিয়ার শিরোপাও হাতছাড়া করতে হলো তাদের।

বুধবারের পুরো ম্যাচেই রোনাল্ডোর ক্ষিপ্রতা দেখা যায়নি। সাদামাটা খেলোয়াড়ে পরিণত হয়েছিলেন তিনি। ৯৩ মিনিটের খেলায় মাত্র তিনটি শট নিতে পেরেছিলেন নাপোলির দিকে।

এর মধ্যে দুটি এতটাই লক্ষ্যভ্রষ্ট ছিল যে, গোলরক্ষক মেরেটকে এ নিয়ে ভাবতেই হয়নি। বাকি একটি শটও ছিল দুর্বল, যা ফেরাতে বেগ পেতে হয়নি তাকে।

তবু গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি বুফনের চমৎকার পারফরম্যান্সে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে।

টাইব্রেকারে গিয়েও ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রোনাল্ডো। পঞ্চম শট নিজে নেবেন বলে ভাগ্য তুলে দেন দিবালাদের হাতে।

আর সেই সিদ্ধান্তই কাল হয়ে দাঁড়াল জুভেন্টাসের জন্য। প্রথম দুই শটেই গোল করতে ব্যর্থ হন জুভেন্টাসের দিবালা ও দানিলো।

এদিকে টানা ৪ শটেই বুফনকে ধরাশায়ী করেন নাপোলির খেলোয়াড়রা। ফলে পঞ্চম শট নেয়ার আগেই ফল নির্ধারণ হয়ে যায়। যে কারণে শট আর নিতে পারেননি রোনাল্ডো।

৪-২ গোলে হেরে যায় জুভেন্টাস। একই সঙ্গে প্রথমবারের মতো টানা দুই ফাইনাল হারের তিক্ত অভিজ্ঞতাও পান পর্তুগিজ তারকা রোনাল্ডো।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button