কাঁচপুরে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ

সোনারগাঁ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের কাঁচপুরে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে বান্ধবীর সহযোগিতায় কোমল পানীয়ের সঙ্গে ঘুমের ঔষধ খাইয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কাঁচপুর উত্তরপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটেছে । ঘটনার পর মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় দুজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর থেকে আসামীরা পলাতক রয়েছে। পুলিশ কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

মামলার এজাহারে কিশোরীর মা উল্লেখ করেন, তার কিশোরী মেয়ে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ে ৫ম শ্রেণীতে পড়া লেখা করে। উপজেলার কাঁচপুর উত্তরপাড়া এলাকার আল আমিনের মেয়ে লামিয়া আক্তার ভূক্তভোগী ওই কিশোরীর বান্ধবী। তিনি ও তার স্বামী কাজে চলে যাওয়ার পর লামিয়া তার বাড়িতে নিয়মিতভাবে যাতায়াত করতো। সোমবার বিকেলে লামিয়া তার বাড়িতে এসে তার চাচা একই গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে ইসমাঈলের বাড়িতে বেড়ানোর কথা বলে তার কিশোরী মেয়েকে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে কৌশলে কোমল পানীয়ের সঙ্গে ঘুমের ঔষধ মিশিয়ে অচেতন করে লামিয়ার সহযোগিতায় কিশোরীকে ইসমাইল ধর্ষণ করে। সন্ধ্যার দিকে ঘুম থেকে জেগে কিশোরী নিজেকে বিবস্ত্র অবস্থায় দেখতে পায়। বাড়িতে গিয়ে কিশোরী বিষয়টি তার মাকে জানায়। পরে মঙ্গলবার দুপুরে ধর্ষিত নারীর মা বাদী হয়ে দুজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর আসামীরা পলাতক রয়েছে।

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক (ওসি) তদন্ত তবিদুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় মামলা গ্রহন করা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ওই কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টরিয়া হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button