ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবায় ফ্লোরা টেলিকমের একযুগ পূর্তি

বাংলাদেশে ব্যাংকিং খাতে সফটওয়্যার নির্ভর ডিজিটাল সেবায় একযুগ পূর্তি করেছে ফ্লোরা টেলিকম লিমিটেড। ২৩ বছর ধরে দেশের তথ্যপ্রযুক্তি ও টেলিযোগাযোগ খাতে সেবা দিয়ে আসলেও ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা শুরু করে ২০০৮ সাল থেকে। ব্যাংক, টেলিকম প্রতিষ্ঠান, সরকারের বিভিন্ন কমিশন, সংস্থাসহ অসংখ্য সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ডিজিটালাইজেশনে কাজ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

মঙ্গলবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ফ্লোরা টেলিকম জানিয়েছে, ২০০৮ সালে বাংলাদেশের জাতীয় ব্যাংকগুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার বাস্তবায়নের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করে। তৎকালীন পরিচালনা পরিষদের অনুমোদনক্রমে যথাযথ ক্রয়নীতি মেনে পিপিআর অনুযায়ী দরপত্রের মাধ্যমে অগ্রণী ব্যাংকের জন্য প্রয়োজনীয় কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার ক্রয়ের প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করা হয়।

দরপত্রের শর্তানুযায়ী, কারিগরি ও সর্বনিম্ন দর প্রস্তাবের জন্য ফ্লোরা টেলিকম লিমিটেড যোগ্য দরদাতা হিসেবে বিবেচিত হয়। পরবর্তীতে ফ্লোরা টেলিকমের দরপত্রের প্রস্তাবিত বিশ্বের এক নম্বর কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার “টেমেনস টি২৪” ব্যবহারের জন্য অগ্রণী ব্যাংক এবং ফ্লোরা টেলিকমের মধ্যে একটি চুক্তি সম্পাদিত হয়। শুরু হয় অগ্রণী ব্যাংকের সঙ্গে ফ্লোরা টেলিকমের ডিজিটাল অগ্রযাত্রা।

চুক্তি অনুযায়ী টেমেনস টি২৪ কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যারের লাইসেন্সের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ইতিমধ্যে ২০১৮ সালে একটি রি-লাইসেন্সিং চুক্তি সম্পন্ন হয় যা পরবর্তী ১০ বছরের জন্য নবায়ন হয়েছে এবং ২০২৮ সাল পর্যন্ত বলবত থাকবে।

ফ্লোরা টেলিকম কর্তৃক বাস্তবায়িত টেমেনস টি২৪ কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যার ব্যবহার করে অগ্রণী ব্যাংক এটিএম সার্ভিস, এজেন্ট ব্যাংকিং, ফরেন রেমিটেন্স সার্ভিস, ইউটিলিটি বিল কালেকশন এবং এসএমএস ব্যাংকিং সেবাসহ বিভিন্ন ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস প্রদান করায় ব্যাংকটির গ্রাহক সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে। অগ্রণী ব্যাংক বর্তমানে ৯৫৬টি শাখার মাধ্যমে সারাদেশে ১ কোটি ১০ লাখ গ্রাহককে ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবা প্রদান করছে।

এ ব্যাপারে ফ্লোরা টেলিকম লিমিটেডের সিওও শেখ জাওয়াহের আহমেদ বলেন, ভবিষ্যতে আরও কীভাবে এবং কম সময়ে সর্বাধুনিক ব্যাংকিং সেবা গ্রাহকদের প্রদান করা যায় সে লক্ষে অগ্রণী ব্যাংক ফ্লোরা টেলিকমের সঙ্গে ২০০৮ সালের চুক্তিবদ্ধ হয়।

চুক্তি অনুযায়ী এবং পিপিআর-এর নিয়ম অনুযায়ী টেমেনস টি২৪ কোর ব্যাংকিং সফটওয়্যারটি পুরাতন ভার্সন থেকে চলতি ভার্সনে আপগ্রেড করার জন্য ইতিমধ্যে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ দরপত্র আহবান করেছে এবং পরবর্তী কার্যাদেশ দেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। সকল অনুমোদন শেষে পরবর্তী ধাপে যাওয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

প্রসঙ্গত, ফ্লোরা টেলিকম গত ২৩ বছর ধরে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিশ্ববিখ্যাত ব্রান্ডের আইটি প্রডাক্ট যথা এইচপি, ডেল, সিসকো ইত্যাদি ও সফটওয়্যার প্রডাক্ট যথা টেমেনস টি২৪, ফ্লোরাব্যাংক, মাইক্রোসফট, ওরাকল ইত্যাদি সরবরাহ, বাস্তবায়ন ও সেবা প্রদান করে আসছে।

ফ্লোরা টেলিকমের সফল বাস্তবায়িত প্রকল্পের মধ্যে উল্লেখযোগ্য অগ্রণী ব্যাংক, বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, বাংলাদেশ ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, সীমান্ত ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, এনসিসিবিএল, এনবিআর, বাংলাদেশ পাসপোর্ট অধিদপ্তর, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন, গ্রামীণফোন, রবি, এয়ারটেল ইত্যাদি।

ফেসবুক থেকে মন্তব্য করুন

Back to top button